History & Background

প্রতিষ্ঠানের ইতিহাস

 

প্রতিষ্ঠা ও কার্যক্রমঃ ১৯৭০ সালে সরকারী কারিগরি/বৃত্তিমূলক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে নেত্রকোণা ভোকেশনাল ট্রেনিং ইনস্টিটিউট (ভিটিআই) প্রতিষ্ঠিত হয়। তবে নেত্রকোণা ভোকেশনাল ট্রেনিং ইনস্টিটিউট (ভিটিআই) এর একাডেমিক কার্যক্রম শুরু হয় বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর ১৯৭৩ সাল থেকে। বতমানে প্রতিষ্ঠানটি নেত্রকোণা সরকারী টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ নামে পরিচিত। এটি প্রতিষ্ঠার প্রাথমিক পর্যায়ে স্বল্পকালীন ৩/৬মাস মেয়াদী প্রশিক্ষণ কোর্স চলে। পরবর্তীতে ১(এক) বছর মেয়াদী জাতীয় দক্ষতামান-৩ এবং ২(দুই) বছর মেয়াদী জাতীয় দক্ষতামান-২ চালু হয়। বর্ণিত কোর্স গুলোতে কোন সাধারন শিক্ষা বিষয় অন্তভুক্ত ছিলনা। অষ্টম শ্রেনী উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের জাতীয় দক্ষতামান-৩ এবং জাতীয় দক্ষতামান-২ এর শিক্ষার্থীরা কারিগরি বিষয়ে দক্ষতা অর্জন করলেও সাধারণ শিক্ষা বিষয়ে পিছিয়ে ছিল বিধায় কর্মক্ষেত্রে অনেকসময় তারা অবমূল্যায়িত হতো। আর এ বিষয়টি নজরে এনে সরকার ১৯৯৫ সালে কারিগরি শিক্ষার পাশাপাশি সাধারন শিক্ষার সমম্বয়ে এসএসসি(ভোকেশনাল) কোর্স নেত্রকোণা ভিটিআই -এ ২টি ট্রেডে (টেকনিক্যাল বিষয়) ১. ইলেকট্রিক্যাল ও ২. ফার্মমেশিনারী চালু হয়। ভিটিআই এর নিয়ন্ত্রনকারী কর্মকর্তার পদবী ছিল ‘‘সুপারিনটেনডেন্ট’’ পরবর্তীতে টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের (এইচ,এসসি সমপর্যায়) প্যাটার্ন অনুযায়ী প্রতিষ্ঠান প্রধানের পদবী ‘‘অধ্যক্ষ’’ করা হয়। সেই সাথে ভিটিআই সমূহের আমূল পরিবর্তন করে বিদ্যমান ২টি ট্রেডের সঙ্গে আরও ২টি ট্রেড সংযুক্ত করে মোট ৪টি ট্রেড ১. ইলেকট্রিক্যাল ২. ফার্মমেশিনারী ৩.ড্রেস মেকিং এবং ৪. ওয়েল্ডিং এন্ড ফেব্রিকেশন চালু করা হয়। দেশে ১৯৯৭ সাল থেকে এইচ.এস.সি (ভোকেশনাল) কোর্স চালু হলেও শিক্ষক স্বল্পতা ও অবকাঠামোগত কারনে নেত্রকোণা ভিটিআই-এ ২০০০ সাল হতে এইচ.এস.সি (ভোকেশনাল) কোর্সে একাদশ শ্রেনীতে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয়। যথানিয়মে ২০০২ সাল হতে এইচ.এস.সি (ভোকেশনাল) কোর্সে দ্বাদশ শ্রেনী সমাপনী পরীক্ষা চালু আছে। ২০০৫ সালের জানুয়ারী মাস হতে এস.এস.সি (ভোকেশনাল) কোর্সের ৪টি ট্রেডে ১. ইলেকট্রিক্যাল ২. ফার্মমেশিনারী ৩.ড্রেস মেকিং এবং ৪. ওয়েল্ডিং এন্ড ফেব্রিকেশন এর ডাবল শিফট অর্থাৎ দ্বিতীয় শিফট সহ বর্তমানে ডিপ্লোমা-ইন-ইলেকট্রিক্যাল টেকনোলজী চালু রয়েছে।