Admission Requirment & Facilities

 

বর্তমানে যে যে কোর্সে ভর্তি কার্যক্রম চালু আছে

 

** ডিপ্লোমা ইন ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এ ভর্তি চলছে **

আসন সংখ্যা-৬০ টি । অনলাইনে আবেদন করতে হবে।

বর্তমানে চালূ ট্রেড/বিভাগ সমূহ:

নবম ও দশম শ্রেণীর জন্য

ক্রঃ নং

এস.এস.সি (ভোকেশনাল)

১ম শিফট

২য় শিফট

০১

জেনারেল ইলেকট্রিক্যাল ওয়ার্কস

৩৬

৩৬

০২

ফার্ম মেশিনারী

৩৬

৩৬

০৩

ড্রেসমেকিং এন্ড টেইলারিং

৩৬

৩৬

০৪

ওয়েল্ডিং ওয়ার্কস

৩৬

৩৬

 

একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণী

ক্রঃ নং

এইচ.এস.সি (ভোকেশনাল)

আসন সংখ্যা

০১

ইলেকট্রিক্যাল ওয়ার্কস এন্ড মেইনটেনেন্স

৩৬

০২

এগ্রো মেশিনারী

৩৬

০৩

ক্লদিং এন্ড গার্মেন্টস ফিনিসিং

৩৬

০৪

ওয়েল্ডিং এন্ড ফেব্রিকেশন

৩৬

 

শর্ট কোর্স (৩/৬মাস/৩৬০ ঘন্টা)

ক্রঃ নং

শর্ট কোর্স (৬মাস/৩৬০ ঘন্টা)

আসন সংখ্যা

০১

 ড্রাইভিং কাম- অটোমেকানিক্স

৩০

 

আপনার সন্তানকে কেন কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত করবেন/সুবিধাঃ

* S.S.C (ভোকেশনাল) ও H.S.C (ভোকেশনাল) পাশ করার পর দেশে-বিদেশে চাকুরীর সুযোগ।

* বিদেশে কর্মরত দক্ষ জনশক্তির বেতন, অদক্ষ জনশক্তির চেয়ে কয়েকগুণবেশী।

* নিজেকে আত্মনির্ভরশীল হিসাবে গড়ে তোলার জন্য পরবর্তীতে আর কোন প্রশিক্ষণ এর প্রয়োজন হয় না।

* সাধারণতঃ শিক্ষা কোর্স সমাপ্তির পূর্বেই আত্মকর্মী হয়ে উপার্জনের সুযোগ।

* শতকরা ৬০ ভাগ ব্যবহারিক ক্লাসের মাধ্যমে হাতে কলমে কাজ শেখার পর্যাপ্ত সুবিধা।

* পর্যাপ্ত লাইব্রেরী সুবিধা।

* আধুনিক যন্ত্রপাতি সুসজ্জিত ওয়ার্কশপ ও কম্পিউটার ল্যাব সুবিধা।

* অভিজ্ঞ উচ্চ শিক্ষিত ও প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত শিক্ষকমন্ডলী দ্বারা ক্লাস ও প্রশিক্ষণ পরিচালনা।

* কারিগরি ডিগ্রীর মূল্যায়ন বিশ্বব্যাপী সাধারণ ডিগ্রীর চেয়ে বেশী।

* শতকরা ৬৫ ভাগ ছাত্র/ছাত্রীর বৃত্তি সুবিধাসহ ছাত্রীদের বিনা বেতনে পড়াশুনার সুযোগ।

* S.S.C (ভোকেশনাল) পাশের পর বিভিন্ন পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটে ১৫% কোটাসহ ভর্তির সুযোগ।

* প্রতিষ্ঠানটি সম্পূর্ণ সরকারী বিধায় নাম মাত্র খরচে পড়াশুনা করার সুযোগ।

* প্রতিটি শিক্ষাক্রমে (একাদশ বাদে) বোর্ড ফাইনাল পরীক্ষার পর ০৬ (ছয়) সপ্তাহ ব্যাপি শিল্পকারখানা কেন্দ্রীক বাস্তব প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয় এবং ৬০০/- টাকা হারে প্রশিক্ষণ ভাতা প্রদান করা হয়।

* S.S.C (ভোকেশনাল) ও H.S.C (ভোকেশনাল) সনদপত্রের মান সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের S.S.C ও H.S.C সনদপত্রের সমমান হওয়ায় H.S.C (ভোকেশনাল) পাশ করার পর দেশের যে কোন বিশ্ববিদ্যালয়, সকল প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (ডুয়েট গাজীপুর ব্যতিত) এবং কলেজ সমূহে উচ্চ শিক্ষার সুযোগ।

 

ভর্তি প্রক্রিয়াঃ

S.S.C (ভোকেশনাল) শিক্ষাক্রম ১ম শিফটে নবম শ্রেণীতে ভর্তির যোগ্যতা জেএসসি বা জেডিসি পাস এবং ২য় শিফটে ভর্তি হওয়ার যোগ্যতা জেএসসি/জেডিসি/৮ম শ্রেণী পাস, বয়স ১২ বছর হতে ১৮ বছর।

H.S.C (ভোকেশনাল) শিক্ষাক্রমে ভর্তি হওয়ার যোগ্যতা যে কোন ট্রেডে S.S.C (ভোকেশনাল) পাশ।

শর্টকোর্স: এসএসসি/সমমান/অষ্টম শ্রেণী।

 

ভর্তির সময়ঃ

১। S.S.C (ভোক) শিক্ষাক্রমে নবম শ্রেণীতে ভর্তির জন্য ডিসেম্বর হতে ফরম বিতরণ ও গ্রহণ।

২। H.S.C (ভোক) শিক্ষাক্রমে S.S.C (ভোক) ফলাফল প্রকাশের পর।

৩। শর্টকোর্স যে কোন সময়।

 

ক্লাসের সময়ঃ

১। ১ম শিফট ক্লাস শুরু সকাল ৭.৩০।

২। ২য় শিফটঃ ক্লাস শুরু দুপুর ১.৩০ ।